বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
কালিগঞ্জে শিক্ষাবান্ধব ডাঃ আমিরুল ইসলাম ৬ বার এসএমসি’র সভাপতি নির্বাচিত সাংবাদিকরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আছেন, প্রয়োজনে যেকোনো কিছু করতে প্রস্তুত গাইবান্ধা জেলা আওয়ামীলীগ অফিসে হামলা ও অগ্নি সংযোগের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন সাতক্ষীরায় সদর থানা ঘেরাও চেষ্টা পুলিশের লাঠিচার্জ সাতক্ষীরা জেলা যুবলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত জিএমপি পূবাইল থানা পুলিশের অভিযানে ০৭ কেজি গাজাসহ গ্রেফতার-০১ সাতক্ষীরায় স্টাটিকস শিক্ষা সহায়ক সংস্থার শিক্ষা উপকরণ বিতরণ অবশেষে কোটা সংস্কারের দাবি মানলেন সরকার কোটা আন্দোলনে ঢাকায় পুলিশের গুলিতে সাতক্ষীরার আসিফ’র মৃত্যু বোয়াখালীতে স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানির ল্যাব সহকারী কে গ্রেপ্তার

কালিগঞ্জে জোরপূর্বক জমি দখল ও ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে

রিপোর্টার নামঃ
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪
  • ১৬৭ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক।

কালিগঞ্জের প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত দীর্ঘ দিনের ভোগদখলীয় সম্পত্তিতে জোর পূর্বক খুঁটি ঘেরা ভাঙচুর ও দখল চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার সদর কুশুলিয়া ইউনিয়নের পিরোজপুর গ্ৰামে এ ঘটনা ঘটেছে। ঘটনায় প্রতিপক্ষ দীনবন্ধু বিশ্বাসের ছেলে গোবিন্দ বিশ্বাসের স্ত্রী শম্পা বিশ্বাস গংদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।এবিষয়ে অভিযোগকারী সুশান্ত বিশ্বাস প্রতিনিধিদের জানান,আমার পূর্বপুরুষ দ্বারিকানাথ পরামানিক মোট ৫টি দাগে ২০০ শতক জমি রেখে মৃত্যুবরন করিলে আমার পিতা সুনীল বিশ্বাস ওয়ারিশ হিসাবে এবং ক্রয় সূত্রে উক্ত জমি থেকে ১১৪ শতক জমি প্রাপ্ত হয়ে তিনি ৫ টি দলিলে সর্বমোট ৫৯ শতক জমি বিক্রি করেন। এবং অবশিষ্ট ৫৫ শতক জমি আমাকে ওয়ারিশ রেখে মারা যান।যাহা অন্যান্য শরিকগণের সাথে ভিন্ন ভিন্ন দাগ হইতে মৌখিক আপোষে এক প্রান্তে ৫৫ শতক জমি ভোগ দখলিকার আছি।

বিআরএস-১২৪ নং রেকর্ড ভ্রমানাত্মক হওয়ায় আমি ৫৫ শতক জমির স্থলে নামজারি ২৫৯ নং খতিয়ানে মাত্র ৪৮ শতক জমি মিউটিশান পাই বিধায় দেওয়ানী আদালতে দে ১৩০/১৫ রেকর্ড সংশোধনের মামলা, দে ২৯/১৭ একটি পার্টিশন সু্টের মামলা এবং দে ৫২/২৩ নম্বরের একটি জমি উদ্ধারের মামলা চলমান রয়েছে। উক্ত মামলা গুলোতে আমাদের স্ব স্ব দখলিয় জমির বিবরণ স্ব স্ব পক্ষের জবাব দখিল করা রয়েছে এবং শুনানি চলছে। মামলা আদালত থেকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না পাওয়া সত্ত্বেও প্রতিবেশী শরীক দীনবন্ধু বিশ্বাস কৌশলী ভূমিকা পালন করে প্রথমে তার ছেলেকে এবং ছেলে তার স্ত্রীকে কিছু সম্পত্তি দানপত্র করে দিয়ে আলাদা একটি শরিক বানিয়ে আমার শান্তিপূর্ণ ভোগ দখলীয় সম্পত্তিতে বারবার অনুপ্রবেশ করার চেষ্টা করে। তারই সূত্র ধরে বিগত ১২/০৪/২০২১ তারিখে কালিগঞ্জ থানায় গোবিন্দ বিশ্বাস, দীনবন্ধু বিশ্বাস সহ আরো ১/২ জনকে অভিযুক্ত করে আমি একটি সাধারণ ডায়েরি করি যার নম্বর ৪৭৯। কালিগঞ্জ থানা কর্তৃক উক্ত সাধারণ ডায়েরি তদন্ত পূর্বক গোবিন্দ বিশ্বাস এবং দীনবন্ধু বিশ্বাস দোষী প্রমাণিত হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে ৫০৬ (খ) ধারায় একটি নন জিআর মামলা রুজু হয়।

যার নম্বর-২৩/২১। উক্ত মামলাটি শুনানি শেষে মাননীয় বিচারক মহোদয় বিবাদীদেরকে মুচলেকা প্রদানের নির্দেশ প্রদান সহ লিগ্যাল এইডে মীমাংসার জন্য প্রেরণ করেন। তারপরো গোবিন্দ বিশ্বাস ও দীনবন্ধু বিশ্বাস থেমে না থেকে বিগত ০৫/০২/২০২৪ তারিখে তার বৌমা শম্পা বিশ্বাসকে জমি জবর দখলের জন্য লেলিয়ে দেয়। তাৎক্ষণিকভাবে ৯৯৯ এ ফোন করে পুলিশি সহায়তার মাধ্যমে আমি তাদেরকে প্রতিহত ও থানায় গিয়ে একটা অভিযোগ দায়ের করি।বিষয়টি সুস্থভাবে পুলিশ তদন্ত শেষে আদালত থেকে কোন আদেশ না পাওয়া পর্যন্ত আমার শান্তিপূর্ণ ভোগ দখলীয় জমির ভেতর অনুপ্রবেশ করতে নিষেধ করে। কিন্তু প্রতিপক্ষ পরিবারের সদস্যগন মামলাবাজ এবং তাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে আমার দখলীয় জমিতে কার্যক্রম পরিচালনায় মহিলাদেরকে সামনে রেখে বিভিন্নভাবে বাধা সৃষ্টি করছে এবং বিভিন্ন রকম মামলার-মাধ্যমের হয়রানি করার পরিকল্পনা করছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী একাধিক জন বলেন দীনবন্ধু বিশ্বাস তার ধর্মীয় পোশাকের আড়ালে মানি লন্ডারিংয়ের মত বিভিন্ন রকম অপকর্মের সাথে জড়িত। ২০১৩ সালের তার বাড়িতে স্থাপিত ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান (ঠাকুর ঘর) এর মধ্য হইতে পুলিশ প্রশাসন কর্তৃক অবৈধ টাকা উদ্ধার করেন। বর্তমান মামলাটি দুদকে তদন্ত চলছে এখনো নিষ্পত্তি হয়নি বলে জানান।এ বিষয়ে বিবাদী দীনবন্ধু বিশ্বাস ও ছেলে গোবিন্দ বিশ্বাস এর কাছে জানতে চাইলে তারা এ বিষয়ে বলেন পৈত্রিক সূত্রে আমরাও এই জমির মালিক। জবর দখল ও ঘেরা ভাংচুরের বিষয়টি স্বীকার করলেও মানি লন্ডারিংয়ের মামলাটি’র বিষয় কৌশলে এড়িয়ে যান।এ বিষয়ে কালিগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত’র মুঠোফোনে ফোন করিলে ফোনটি রিসিভ করেননি এজন্য বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

সাংবাদ পড়ুন ও শেয়ার করুন

আরো জনপ্রিয় সংবাদ

© All rights reserved © 2022 Sumoyersonlap.com

Design & Development BY Hostitbd.Com

কপি করা নিষিদ্ধ ও দণ্ডনীয় অপরাধ।