সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০২:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রায়পুরায় আ.লীগ এর ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত প্রতিরোধহীন বেদনা আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন হামিদচর এলাকা থেকে অবশেষে কাজলের লাশ উদ্ধার সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের ভ্যান উপহার পেলেন স্বামী পরিত্যক্তা নারী সাতক্ষীরায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত পঞ্চগড়ে বঙ্গবন্ধু আন্তঃকলেজ গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন আগামীকাল জি বাংলায় “কুবের ময়না” নাটকে অভিনয়ে থাকবে সাংবাদিক কন্যা তিতলি রামপালে নানা আয়োজনে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত  জিএমপি পূবাইল থানা পুলিশের অভিযানে সিআর ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেফতার- ৪

কুকুর লেলিয়ে ছাত্র হত্যা, হাইকোর্টের রায় আজ

রিপোর্টার নামঃ
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৩ নভেম্বর, ২০২২
  • ১২২ বার পঠিত

 

মুন্নি আক্তার, স্টাফ রিপোর্টারঃ

চট্টগ্রামে কুকুর লেলিয়ে মেধাবী ছাত্র হিমাদ্রী মজুমদারকে হত্যার রায় আজ বৃহস্পতিবার। বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর হাইকোর্ট বেঞ্চে এ রায় ঘোষণা করা হবে।

এর আগে ২০১৬ সালের ১৬ আগস্ট হিমাদ্রি হত্যার দায়ে পাঁচজনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেন চট্টগ্রামের একটি আদালত।

এই পাঁচজন হলেন শাহ সেলিম ওরফে টিপু, শাহাদাত হোসেন, মাহাবুব আলী, শাহ সেলিমের ছেলে জুনায়েদ রিয়াদ ও তার বন্ধু জাহিদুল ইসলাম। তাদের মধ্যে কারাগারে আছেন শাহ সেলিম, শাহাদাত ও মাহাবুব। পলাতক আছেন জুনায়েদ ও জাহিদুল।

২০১২ সালের ২৭ এপ্রিল চট্টগ্রামের পাঁচলাইশের একটি ভবনের পাঁচতলার ছাদে নিয়ে হিমাদ্রীকে মারধরের পর কুকুর লেলিয়ে দেওয়া হয়। পরে তাকে ছাদ থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয় বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়। ওই বছরের ২৩ মে ঢাকার একটি হাসপাতালে মারা যান এ-লেভেলের শিক্ষার্থী হিমাদ্রী।

হিমাদ্রী হত্যার ঘটনায় তার মামা অসিত কুমার দে পাঁচলাইশ থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে ২০১২ সালের ৩০ অক্টোবর পাঁচজনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। ২০১৪ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি আদালত পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।

নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন আসামিরা। সেই আপিল ও ডেথরেফারেন্সের শুনানি শেষে রায়ের এ দিন ধার্য করেছেন হাইকোর্ট।

সাংবাদ পড়ুন ও শেয়ার করুন

আরো জনপ্রিয় সংবাদ

© All rights reserved © 2022 Sumoyersonlap.com

Design & Development BY Hostitbd.Com

কপি করা নিষিদ্ধ ও দণ্ডনীয় অপরাধ।