সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রায়পুরায় আ.লীগ এর ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত প্রতিরোধহীন বেদনা আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন হামিদচর এলাকা থেকে অবশেষে কাজলের লাশ উদ্ধার সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের ভ্যান উপহার পেলেন স্বামী পরিত্যক্তা নারী সাতক্ষীরায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত পঞ্চগড়ে বঙ্গবন্ধু আন্তঃকলেজ গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন আগামীকাল জি বাংলায় “কুবের ময়না” নাটকে অভিনয়ে থাকবে সাংবাদিক কন্যা তিতলি রামপালে নানা আয়োজনে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত  জিএমপি পূবাইল থানা পুলিশের অভিযানে সিআর ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেফতার- ৪

চট্টগ্রাম চন্দনাইশ উপজেলা নিবার্চন রিটার্নিং কর্মকর্তার সামনেই ভোটে জিততে ‘লাশ ফেলার হুমকির’

রিপোর্টার নামঃ
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৬ মে, ২০২৪
  • ৩৯ বার পঠিত

এম মনির চৌধুরী রানা,চট্টগ্রামঃ

চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের এক প্রার্থীর বিরুদ্ধে রিটার্নিং কর্মকর্তার সামনেই ভোট জিততে প্রয়োজনে ‘এক শ লাশ ফেলার’ হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আবু আহমেদ চৌধুরী নামের ওই প্রার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। আবু আহমেদ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। আবু আহমেদ ছাড়া ও এই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফুল ইসলাম চৌধুরী, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আহম্মদ হোসেন এবং জসীম উদ্দিন আহমেদ নামে এক প্রবাসী। চন্দনাইশ উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে ভোট গ্রহণ আগামী ২৯ মে। গত ১৩ মে সোমবার দুপুরে চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ের সম্মেলনকক্ষে প্রার্থীদের উপস্থিতিতে প্রতীক বরাদ্দ দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম প্রামানিক। ৪ প্রার্থীই আনারস প্রতীক চাইলে রিটার্নিং কর্মকর্তা লটারির মাধ্যমে প্রতীক বরাদ্দ দেন। সেখানেই আবু আহমেদ চৌধুরী জুনু প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জসিম উদ্দীন আহমেদের প্রতিনিধিকে এই হুমকি দেন বলে অভিযোগ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জসীম উদ্দিন আহমেদ বলেন, তিনি (আবু আহমেদ চৌধুরী জুনু) রিটার্নিং কর্মকর্তার সামনে আমার প্রতিনিধিকে লক্ষ করে বলেন, প্রয়োজনে ১০০ লাশ ফেলব। তার পরও আমি চেয়ারম্যান হব। এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ দেন প্রবাসী জসীম উদ্দিন আহমেদ । এরপর আবু আহমেদ চৌধুরীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। রিটার্নিং কর্মকর্তা স্বাক্ষরিত কারণ দর্শানো নোটিশে বলা হয়, ‘চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থীই একই প্রতীক চাওয়াতে সবার সম্মতিতে লটারির মাধ্যমে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। প্রতীক বরাদ্দের পর বেলা ১টা ৪০ মিনিটের সময় আপনি আবু আহমেদ চৌধুরী অপর প্রার্থী জসীম উদ্দিন আহমেদের প্রতিনিধিকে ১০০ লাশ ফেলে দেব এবং নির্বাচনের সময় দেখে নেওয়া হবে মর্মে হুমকি প্রদর্শন করেন। আপনার এমন বক্তব্য উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আচরণ বিধিমালা ২০১৬–এর ১৮ বিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে আবু আহমেদ চৌধুরী জুনু বলেন, ‘এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ। আমি বলেছি, আমি নিজের জীবন দিয়ে ভোটের পরিবেশ রক্ষা করব। আমি নোটিশের জবাব দিয়েছি। নোটিশের বিষয়ে জানতে চাইলে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. রাকিবুজ্জামান জানান , ‘প্রতীক বরাদ্দের পর আমাদের সামনে জসীম উদ্দিন আহমেদ এর প্রতিনিধিকে হুমকি দেন আবু আহমেদ চৌধুরী । এ ঘটনায় তাঁর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা কেন নেওয়া হবে না, তা উল্লেখ করে নোটিশ দেওয়া হয়। এখনো জবাব হাতে পাইনি।

সাংবাদ পড়ুন ও শেয়ার করুন

আরো জনপ্রিয় সংবাদ

© All rights reserved © 2022 Sumoyersonlap.com

Design & Development BY Hostitbd.Com

কপি করা নিষিদ্ধ ও দণ্ডনীয় অপরাধ।