সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রায়পুরায় আ.লীগ এর ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত প্রতিরোধহীন বেদনা আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন হামিদচর এলাকা থেকে অবশেষে কাজলের লাশ উদ্ধার সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের ভ্যান উপহার পেলেন স্বামী পরিত্যক্তা নারী সাতক্ষীরায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত পঞ্চগড়ে বঙ্গবন্ধু আন্তঃকলেজ গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন আগামীকাল জি বাংলায় “কুবের ময়না” নাটকে অভিনয়ে থাকবে সাংবাদিক কন্যা তিতলি রামপালে নানা আয়োজনে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত  জিএমপি পূবাইল থানা পুলিশের অভিযানে সিআর ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেফতার- ৪

মানিকগঞ্জে ইট ভাটার মালিক আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে ১৭ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ।

রিপোর্টার নামঃ
  • আপডেট সময় সোমবার, ৭ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৫৯ বার পঠিত

মানিকগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি,শামীম মিয়াঃ-

অগ্রিম ইট দেওয়ার কথা এবং ব্যবসায়িক কাজে টাকা লাগবে বলে প্রায় দুইশত মানুষের কাছ থেকে ১৭ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মানিকগঞ্জের এআরসি ইট ভাটার মালিক আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে। স্থানীয়দের অভিযোগ আব্দুর রাজ্জাক মানুষের কাছ থেকে প্রতারনা করে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে। মানুষের পাওনা টাকা ফেরত দিবে না বিধায় তার ৪ টি ইট ভাটা বতর্মানে বন্ধ রেখেছে। ঘটনা সুত্রে জানা যায়, সদর উপজেলা সুলুন্ডী গ্রামের শাহীনুর রহমান অনেক দিন বিদেশে ছিলেন। বিদেশ থেকে বাড়িতে আসেন এবং ঘর নির্মাণ করবে বলে ইট কেনার জন্য অগ্রিম ৬ লক্ষ টাকা আব্দুর রাজ্জাকে দেন। পরবর্তীকালে তিনি ইট পাননি। শাহীনুর অসুস্থ হলে অপারেশনের জন্য রাজ্জাকের কাছে তার পাওনা টাকা ফেরত চাইলে আর দেয়নি। ফলে টাকার অভাবে চিকিৎসা করতে না পারায় শাহীন অন্ধ হয়ে যায়। শাহীন টাকা ফেরত সহ রাজ্জাকের কঠিন বিচার চায়। স্থানীয়রা আরও জানান,এআরসি ইট ভাটার মালিক আব্দুর রাজ্জাক প্রতারনা করে মানুষের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা মেরে পল্টি ফার্ম,হেচারি ও গরুর ফার্ম সহ গাজীপুরে মৌচাকে জমিজমা কিনেছে। তাছাড়া স্থানীয় এক মসজিদে ইট দেওয়ার কথা বলে প্রায় ৭০ হাজার টাকা নিয়ে পরে আর ইট দেয়নি। ভুক্তভোগীরা ন্যায় বিচার পাওয়ার স্বার্থে প্রতারক রাজ্জাকের বিরুদ্ধে প্রশাসনের নিকট লিখত অভিযোগ করেছে বলে জানান। এ বিষয়ে এআরসি ইট ভাটার মালিক আব্দুর রাজ্জাকের নিকট জানতে চাইলে প্রথমে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পরে বলেন আমার কাছে কিছু মানুষ টাকা পাবে কিন্তু এত পরিমাণ টাকা না। তিনি ম্যানেজারের উপর দায়ভার চাপিয়ে দিয়ে বলেন সে আমাকে ৭/৮ কোটি টাকার হিসাব দেয়নি। ম্যানেজার সম্পর্কে জানতে চাইলে আব্দুর রাজ্জাক বলেন সে এখন পালাতক রয়েছে। বেতিলা-মিতরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসমত আলী কে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, আব্দুর রাজ্জাকের বিষয়টি আমি সমাধান করার চেষ্টা করেছি কিন্তু রাজ্জাক এ ব্যাপারে আমাকে কোন সহযোগিতা করেনি। যার ফলে ঘটনার সুষ্ঠু সমাধান হচ্ছে না। এ পরিস্থিতিতে ভুক্তভোগী জনসাধারণ আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিলে আমার কোন সমস্যা নেই। জানা গেছে এআরসি ইট ভাটার মালিক আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে আদালতে ৪০ টির মতন মামলা চলমান রয়েছে। তাছাড়া ভুক্তভোগীরা ন্যায় বিচার পাওয়ার স্বার্থে আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন সহ অন্যান্য কর্মসূচি পালন করছে।

সাংবাদ পড়ুন ও শেয়ার করুন

আরো জনপ্রিয় সংবাদ

© All rights reserved © 2022 Sumoyersonlap.com

Design & Development BY Hostitbd.Com

কপি করা নিষিদ্ধ ও দণ্ডনীয় অপরাধ।