বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৫:৪৭ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
গজারিয়ায় এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ মুন্সীগঞ্জে শ্রীনগরে পূর্ব শত্রুতার জেরে সাংবাদিকের উপর হামলা, থানায় অভিযোগ সৌদিতে এটিএম মেশিন ভাঙার অভিযোগে ৩ ভারতীয় নাগরিক গ্রেফতার চট্টগ্রামে নির্ধারিত সময়ের আগেই কোরবানির পশুর বর্জ্যমুক্ত ফুলবাড়িতে ৩শ পরিবারের মাঝে ঈদের মাংস বিতরন সাতক্ষীরায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু-২ তাহিরপুর উপজেলা বাসীকে ঈদ শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন,ইউনিয়ন কৃষক লীগের সভাপতি’ শেখ মোস্তফা মাওলানা নরুল হক সাহেব এর নামাজে জানাযা ও দাফন সম্পন্ন পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইউনিয়ন আ: লীগের সভাপতি কাজী সজল দেশ বাসীকে ঈদ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন,বীর মুক্তিযোদ্ধা মো.আবুল হোসেন খান

মুন্সীগঞ্জের বিরোধে ৪ জনকে পিটিয়ে যখম, বৃদ্ধা আশংকাজনক।

রিপোর্টার নামঃ
  • আপডেট সময় শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৮৩ বার পঠিত

 

মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতি‌নি‌ধিঃ

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মাকহাটি গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধীদের জের ধরে একই পরিবারের চারজনকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। গুরুতর আহত সালেহা বেগম (৭৪) কে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। আহত সালেহা বেগম আশংকাজনক। বাকিদের মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

জান গেছে, মাকহাটি গ্রামের আব্দুল হাই মাঝি এর সাথে প্রতিবেশী রানা মাজি গংদের দীর্ঘদিন যাবত জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছে।
সেই বিরোধের জেরে ধরে গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাত ৯ টার দিকে মাকহটি গ্রামের রানা মাঝি, অপু মাঝি, আলমগীর মাঝি, শাজাহান মাঝি, ভিউটি বেগম জুনু বেগম কাঠের ডাসা, লোহার রড, সাবাল, ছুরি দিয়ে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে আব্দুল হাই মাজির বাড়িতে আসে।

এ সময় আব্দুল হাই মাঝির ছেলে মৃদুল হাসানকে বাড়ির উঠানে পাইয়া উঠাইয়া নেওয়ার চেষ্টা করে। আব্দুল হাইয়ের মাঝির স্ত্রী আয়েশা বেগম ও মা সালেহা বেগম বাঁধা দেয়। এ সময় তারা আয়েশা বেগম ও সালেহা বেগমকে পিটাইয়া গুরুতর জখম করে। পরে খবর পাইয়া আব্দুল হাই মাঝি বাড়িতে আসলে উক্ত ব্যক্তিরা, তাকেও পিটিয়ে জখম করে।

পরে, এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য সালেহা বেগমকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পেরণ করে। এ ব্যাপারে আব্দুল হাই মাঝি বাদী হয়ে সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

আহত ছাহেলা বেগমের ছেলে হামজা বলেন, পূর্বশত্রতার জেরে ঐদিন আমার ভাতিজা মৃদুল হাসানকে তারা উঠিয়ে নিতে চেষ্টা করে। পরে আমাদের পরিবার তাকে উদ্ধার করতে গেলে তাদের পিটিয়ে জখম করে। আমার মা ৭৪ বছরের বৃদ্ধা, তার বা পাটি ভেঙে ফেলেছে, এখন মা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

অভিযোগে বিষয়টি জানার জন্য অভিযুক্ত শাহজাহান মাঝিকে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও পাওয়া যায়নি। সদর থানার এসআই আরিফ বলেন, আমি একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত করছি, অধিকতর তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাংবাদ পড়ুন ও শেয়ার করুন

আরো জনপ্রিয় সংবাদ

© All rights reserved © 2022 Sumoyersonlap.com

Design & Development BY Hostitbd.Com

কপি করা নিষিদ্ধ ও দণ্ডনীয় অপরাধ।