বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৯:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
কালিগঞ্জে শিক্ষাবান্ধব ডাঃ আমিরুল ইসলাম ৬ বার এসএমসি’র সভাপতি নির্বাচিত সাংবাদিকরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আছেন, প্রয়োজনে যেকোনো কিছু করতে প্রস্তুত গাইবান্ধা জেলা আওয়ামীলীগ অফিসে হামলা ও অগ্নি সংযোগের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন সাতক্ষীরায় সদর থানা ঘেরাও চেষ্টা পুলিশের লাঠিচার্জ সাতক্ষীরা জেলা যুবলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত জিএমপি পূবাইল থানা পুলিশের অভিযানে ০৭ কেজি গাজাসহ গ্রেফতার-০১ সাতক্ষীরায় স্টাটিকস শিক্ষা সহায়ক সংস্থার শিক্ষা উপকরণ বিতরণ অবশেষে কোটা সংস্কারের দাবি মানলেন সরকার কোটা আন্দোলনে ঢাকায় পুলিশের গুলিতে সাতক্ষীরার আসিফ’র মৃত্যু বোয়াখালীতে স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানির ল্যাব সহকারী কে গ্রেপ্তার

রামপালে সাম্প্রদায়িকতার বাষ্প ছড়ানোর অপচেষ্টা ও ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে আ’লীগের সংবাদ সম্মেলন 

রিপোর্টার নামঃ
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৬ মে, ২০২৪
  • ৫৬ বার পঠিত

রামপাল (বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ

বাগেরহাটের রামপালে অসম্প্রদায়িক সম্প্রিতির ঐতিহ্যে লালিত রাজনগর ইউনিয়নে সাম্প্রদায়িকতার বাষ্প ছড়ানোর অপচেষ্টা ও ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে

সংবাদ সম্মেলন করেছেন রাজনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) বিকাল ৬.০০ টায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে ঐতিহ্যবাহী কালেখারবেড় দীঘির পাড়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলন লিখিত বক্তব্যে ইউনিয়ন আওয়ামী সাধারণ সম্পাদক নিখিল রঞ্জণ চৌধুরী জানান, রাজনগর ইউনিয়ন শত বছরের সম্প্রীতির ঐতিহ্যে লালিত একটি শান্ত জনপদ। এখানে যুগের পর যুগ ধরে হিন্দু-মুসলিম ধর্মাবলম্বী জনগোষ্ঠী শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান করে এ ঐতিহ্যকে সমুন্নত রেখেছে।

অতীতে এখানে ধর্মীয় বিভেদের কোন নজির নেই। এই ইউনিয়নের জনসাধারন ধর্মীয় পরিচয়ের উর্দ্ধে অসাম্প্রদায়িক ভ্রাতৃত্বকে গুরুত্ব দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে কাধে কাধ মিলিয়ে বসবাস করে আসছে।

সংবাদ সম্মেলন আরো জানান, অতীব দুঃখের সাথে আমরা লক্ষ্য করছি যে, সাম্প্রতিককালে আমাদের সে ঐতিহ্য বিনষ্ঠ করার জন্য একটি কুচক্রী মহল সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়ানোর গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।

এ ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছিলো বহুল আলোচিত বর্নালী ঘোষ ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের মধ্য দিয়ে। অতীতের বর্ণালী ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের সে বিভৎসতা যা আজও এ অঞ্চলের জনসাধারনকে আতঙ্কগ্রস্ত করে। এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত আসামিরা এবং তাদের ‘সাঙ্গ-পাঙ্গ’রা প্রায়ই এ শান্তির জনপদে এসে জনগণের মধ্যে ত্রাশ সৃষ্টি করার জন্য সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে লিপ্ত হয়।

এ সন্ত্রাসী বাহিনী গত কয়েকমাস আগে ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয়কে হত্যার উদ্দেশ্যে তার উপর পৈচাশিক হামলা চালিয়ে হাতুড়ি দিয়ে পিঁটিয়ে তাকে গুরুতর জখম করে। উন্নত চিকিৎসায় তিনি সুস্থ হলেও তার মাথার সেলাইয়ের সে চিহ্ন আজও তাকে এবং এলাকাবাসীকে আতঙ্কগ্রস্ত করে।

তিনি আরো জানান, গত( ৮ মে) রামপাল উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। অত্যন্ত স্বচ্চ, নিরপেক্ষ, অবাধ, সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ এবং অংশগ্রহনমূলক এ নির্বাচনে আনারস প্রতীকের প্রার্থী সেখ মোয়াজ্জেম হোসেন জয়লাভ করে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সেই চিহ্নিত সন্ত্রাসী

গোষ্ঠী পূনরায় আবারও এই ইউনিয়নকে অশান্ত করার পায়তারা করছে। সম্প্রতি দেখা গেছ যে, সবুজ শেখ এবং ইমরান শেখ গং অর্থের বিনিময়ে গুটিকয়েক লোক তাদের উদ্দ্যেশ্যে জ্বালাময়ী বক্তব্য দিয়ে, তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক ছড়ানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।

এ বাহিনীর সাথে রয়েছে এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ‘তিতাস-হাসিনা’ দম্পতি। সবুজ শেখের নেতৃত্বে এই গোষ্ঠীটি ইতোমধ্যে রাজনগর ইউনিয়নের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিনষ্ঠ করার জন্য এবং এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে ত্রাশ সৃষ্টির উদ্দেশ্যে এই ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন শেখকে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী হানিফ শেখ, আলী শেখ এবং মোর্শেদ শেখকে দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে। যার ফলে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে চরম আতঙ্ক এবং উতকন্ঠা বিরাজ করছে।

তিনি আরো জানান, দীর্ঘ ১৬ বছর বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় রয়েছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পরিচালিত এ সরকার সমগ্র বাংলাদের সুষম উন্নয়ন যেমন করেছেন। তেমনি এদেশে বসবাসরত সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর অধিকার এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় রাজনগর

ইউনিয়নের সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর প্রতিটি মানুষ সাচ্ছন্দে এবং সম্পূর্ণ নিরাপদে জীবন যাপন করেন। এই অঞ্চলের রাজনৈতিক অবিভাবক খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য হাবিবুন নাহারের অবিভাবকত্বের ছায়াতলে এই জনপদের প্রতিটি মানুষের ন্যায় রাজনগর ইউনিয়নের প্রতিটি মানুষ ও অত্যন্ত সাচ্ছন্দে সম্পূর্ণ নিরাপদ জীবন যাপন করছেন।

আমরা ইতোমধ্যে লক্ষ্য করেছি যে, গত ১৫ মে, ২০২৪ এই ইউনিয়নে এই গোষ্ঠী একটি সংবাদ সম্মেলন করেছে। সেখানে সংখ্যালঘুদের ব্যবহার করা হয়েছে। আদৌ সংখ্যালঘুদের নির্যাতনের ঘটনা এখানে ঘটেনি। এটা করার মূল কারণ দলের এবং সরকারের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করার জন্য উদ্দেশ্য মূলকভাবে এটা করা হয়েছে। আমরা তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

সংখ্যালঘু নির্যাতনের ধোয়াতুলে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছড়িয়ে এই এলাকার শান্তিপূর্ণ পরিবেশকে যারা অশান্ত করার গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে সেই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি প্রদানের জন্য প্রশাসনের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।

সাথে সাথে এই সংবাদ সম্মেলনর মাধ্যমে রাজনগর ইউনিয়নের শান্তি বিনষ্ঠকারী, রাষ্ট্র

এবং সরকারের ভাবমূর্তি বিনষ্ঠকারী যে কোন অপততপরতা এবং ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রাজনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এবং সকল সহযোগী সংগঠন তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলন উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আকরাম হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ বদরুজ্জামান, মহিউদ্দিন শেখ, তারিকুল ইসলাম তুফানসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সাংবাদ পড়ুন ও শেয়ার করুন

আরো জনপ্রিয় সংবাদ

© All rights reserved © 2022 Sumoyersonlap.com

Design & Development BY Hostitbd.Com

কপি করা নিষিদ্ধ ও দণ্ডনীয় অপরাধ।